কাইন মাস্টার অ্যাপস প্রো ডাউনলোড করুন সম্পূর্ণ ফ্রি

কাইনমাস্টার সফটওয়্যার : হ্যালো বন্ধুরা, আপনার কি অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল দিয়ে ভিডিও এডিটং করতে চান? তাহলে এই এপসটি ডাউনলোড করুন। এন্ড্রয়েড ফোন দিয়ে সবচেয়ে ভালো মানের ভিডিও এডিট করার একটাই মাত্র অ্যাপস সেটা হলো কাইন মাস্টার। এই কাইন মাস্টার অ্যাপস এর মাধ্যমে কম্পিউটারের মতো ভিডিও এডিট করা যায়। হ্যাঁ! আপনার মোবাইলটি যদি বর্তমান ভার্সনের হয়ে থাকে তাহলে খুব স্মুথলি কাজ করতে পারবেন।

আপনারা সবাই জানেন যে ভিডিও এডিটিং করার জন্য একটু ভালো মানের ডিভাইসের দরকার হয়। কারণ ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার গুলো অনেক ভারি হয়ে থাকে।

যেটা Low Quality ডিভাইসগুলো একটু সমস্যা করে। যুগে যুগে এন্ড্রয়েড ভার্সন যেমন আপডেট হচ্ছে তার সাথে সফটওয়্যার ডেভেলপাররা কোডিং করে অ্যাপগুলোও উন্নত করছে।

আর এর কারণে কাইন মাস্টার অ্যাপে আরো নানা রকম ফিচার যুক্ত হয়েছে যেগুলো খুবই প্রশংসনীয়।

কাইন মাস্টার অ্যাপস দিয়ে ভিডিও এডিট করার সবচেয়ে মজার বিষয় হলো এটায় ফাংশনগুলো খুব সহজ ও ইউজার ফ্রেন্ডলি।

আপনার এডিটং করা প্রতিটি ভিডিও Full HD আকারে মেমোরি কার্ডে সেভ করতে পারবেন। ইউটিউবে দেখা যায় অনেকেই কাইন মাস্টার অ্যাপস দিয়ে এডিটিং করে ভিডিও আপলোড করে।

সেই ভিডিওগুলোর এডিট দেখলে আপনি বোঝতেই পারবেন না যে কাইনমাস্টার সফটওয়্যার দিয়ে করা হয়েছে।

একথায় বলতে গেলে মোবাইল দিয়ে ভিডিও এডিট করার জন্য কাইন মাস্টার অ্যাপস কিং। অর্থাৎ মোবাইলে ভিডিও এডিটরের রাজা কাইনমাস্টার অ্যাপস।

কাইন মাস্টার অ্যাপস কি?

যারা ভিডিও এডিটিং করতে পছন্দ করেন তারা সবাই হয়তো জানেন কাইনমাস্টার সফটওয়্যারটি কি এবং কিসের জন্য এই সফটওয়্যার ব্যবহার করা হয়।

কাইনমাস্টার সফটওয়্যার

কাইন মাস্টার অ্যাপস মূলত একটি ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যার, যেটা দিয়ে স্মার্ট ফোনের মাধ্যমে সকল ধরনের ভিডিও এডিট করা সম্ভব।

আর যদি মোবাইলের প্রসেসর ভালো মানের না হয়ে থাকে তাহলে হাই-কোয়ালিটি ভিডিওগুলো এডিট করার সময় মোবাইল অনেকটা হ্যাং বা গরম হয়ে যেতে পারে।

কাইনমাস্টার এপস সম্পূর্ণ ফ্রি করে দেওয়া হয়েছে ইউজারদের জন্য। তবে এটার প্রিমিয়াম/প্রো-ভার্শনও রয়েছে।

প্রো-ভার্শনে এক্সট্রা কিছু প্রিমিয়াম ফিচার পাওয়া যাবে ও ওয়াটারমার্ক থাকবে না। কাইন মাস্টার অ্যাপস তৈরি করেছে “KineMaster Corporation” নামে একটি মাল্টিমিডিয়া সফটওয়্যার কোম্পানি। এই কোম্পানিটি সাউথ কোরিয়ায় অবস্থিত।

২০১৩ সালের ২৬ ডিসেম্বার কাইন মাস্টার অ্যাপস প্রথমবারের মতো রিলিজ করা হয়। সারা বিশ্বে অ্যাপটি যেমন জনপ্রিয়তা অর্জন করেছিল তার মধ্যে অন্যতম দেশ হলো ইন্ডিয়া।

কাইনমাস্টার অ্যাপস এন্ড্রয়েড ও আইওএস দুটি ভার্শনেই পাওয়া যাবে। গুগল প্লে-স্টোর থেকে এন্ড্রয়েড ভার্সন ও অ্যাপলের অ্যাপ স্টোর থেকে আইওএস ভার্শনে কাইনমাস্টার এপিকে ডাউনলোড করা যাবে।

মজার এই ভিডিও এডিট করার অ্যাপ্লিকেশনটি আপনার ফোন, ট্যাবলেট ও ক্রোমবুক এর মাধ্যমে ইউজ করতে পারবেন।

আরো পড়ুনঃ

কম্পিউটারের জন্য কাইনমাস্টার সফটওয়্যার বানানো হয়নি। তবে আপনি যদি পিসিতে কাইন মাস্টার অ্যাপস চালাতে চান তাহলে “Bluestacks” সফটওয়্যারের সহায়তা নিতে হবে।

কাইনমাস্টার সফটওয়্যার কেন প্রয়োজন?

এন্ড্রয়েড ও আইওএস সিস্টেমের জন্য Professional video editing software-হলো কাইনমাস্টার। এডিটিং করার সময় আপনার কোনো ইন্টারনেট কানেকশন লাগবে না।

আর যদি প্রো-ভার্শন ইন্সটল করে থাকেন তাহলে কিছু ফিচার রয়েছে যেগুলো ইন্টারনেট সংযোগের মাধ্যমে ডাউনলোড করতে হবে।

ভিডিও এডিটিং করে মেমোরি কার্ডে সেভ করা ও সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন। kinemaster সফটওয়্যারে Multiple Layers-রয়েছে যার মাধ্যমে এক সাথে দুই ভিডিও জোড়া লাগানো ও ভিডিওটি আরো আকর্ষনীয় করার জন্য বিভিন্ন ধরনের Effects যুক্ত করতে পারবেন।

আপনি যদি নানা রকম ছবি দিয়ে ভিডিও তৈরি করতে চান ও ভিডিওর মধ্যে অডিও গান লাগাতে চান তাহলে kinemaster অ্যাপই আপনার জন্য যথেষ্ট।

মোট কথা মোবাইলের মাধ্যমে ভিডিও এডিটিং করার জন্য যা যা প্রয়োজন তার সবকিছুই এই অ্যাপের মধ্যে পেয়ে যাবেন। চলুন এই অ্যাপের কিছু ফিচার সম্পর্কে জেনে নেই-

Effects

effects

কাইনমাস্টার ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যারে ইফেক্টস রয়েছে অসংখ্য। আপনি অবাক করে দেওয়ার মতো কিছু ইফেক্ট পাবেন যেগুলো সচরাচর কম্পিউটার সফটওয়্যার ছাড়া অন্যকোনো অ্যাপে পাওয়া যায় না।

কিন্তু সময়ের পরিবর্তে স্মার্ট ফোনের জন্য এমন একটি সফটওয়্যার আবিষ্কার হলো যেটার কথা না বললেই নয়। হ্যাঁ! আমি কাইনমাস্টার এপিকে নিয়েই বলছি।

এই অ্যাপস নিয়ে ইউটিউবে অনেক ধরনের টিউটোরিয়াল পাবেন। যার মাধ্যমে কাইন মাস্টার অ্যাপে দক্ষ্য হয়ে ভিডিও এডিটিং করেও ইনকাম শুরু করে দিতে পারবেন।

যাইহোক, এই অ্যাপের ইফেক্ট খুবই চমৎকার এবং অতিরিক্ত কোনো ইফেক্ট দরকার হলে ইন্টারনেটের মাধ্যমে ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

Adjustments

কাইন মাস্টার এডজুস্টমেন্টস টুলস এর মাধ্যমে ভিডিও কালার চেঞ্জ করতে পারবেন। আপনার কোনো ভিডিওতে যদি আলো বাড়াতে ও কমাতে হয় তাহলে এই Tools-এর মাধ্যমে এডিট করে নিতে পারবেন।

Animation

এই অ্যাপে Amazing-কিছু এ্যানিমেশন পাবেন যেগুলোর প্রভাব দেখে মনে হবে আপনি কম্পিউটার দিয়ে বিয়ে বাড়ির ভিডিও এডিটিং করেছেন।

ভিডিও এডিট করার সময় বিভিন্ন ইমেজ, টেক্সট ইত্যাদি ব্যবহার করে এনিমেশন যুক্ত করা যাবে। পছন্দ মতো এনিমেশন বাছাই করে ভিডিওতে লাগানো যাবে।

যদি অতিরিক্ত কোনো এনিমেশনের দরকার হয় তাহলে নেট কানেকশন অন করে ডাউনলোড করতে পারবেন।

Real-Time Recording

ভিডিও এডিট করার সময় যদি কোনো ভয়েস রেকর্ড যুক্ত করতে চান তাহলে এর মধ্যে রয়েছে Real-Time Recording

আপনি যখন ভিডিও এডিট করা শুরু করবেন ঠিক সেই সময়েও অ্যাপটির মাধ্যমে ভয়েস রেকর্ড করে ভিডিওর মধ্যে যুক্ত করতে পারবেন। এটা হলো অ্যাপটির আলাদা একটি গুণ।

Chroma Key

Chroma Key

অনেকেই Chroma Key এই নাম শুনেছেন অথবা এর কাজ কি সেটাও জানেন। এই টুলসের কাজ হলো ভিডিওর ব্যাকগ্রাউন্ড রিমুভ করে অন্য যেকোনো ব্যাকগ্রাউন্ড যুক্ত করা।

এটা একমাত্র সেই ভিডিওগুলোর ব্যাকগ্রাউন্ড রিমুভ করতে পারবেন যেটার ব্যাকগ্রাউন্ডে এক কালার বা শুধুমাত্র গ্রীন কালার রয়েছে। এটা মূলত অনেক মুভির শুটিং করা হয়।

শুটিং করার সময় তারা পেছনে গ্রীন কালার পর্দা লাগিয়ে দেয়। ফলে ভিডিও এডিটিং সফটওয়্যারের মাধ্যমে গ্রীন কালার পর্দা সরিয়ে যেকোনো ধরনের ইমেজ বা ভিডিও লাগানো হয়।

আর এটা আপনিও কাইন মাস্টার অ্যাপস এর মাধ্যমে করতে পারবেন শুধুমাত্র Chroma Key টুলস ব্যবহার করে।

কাইনমাস্টার ডাউনলোড

গুগল প্লে-স্টোর থেকে এন্ড্রয়েড ইউজাররা কাইন মাস্টার অ্যাপস ডাউনলোড করতে পারবেন সম্পূর্ণ ফ্রী। এছড়াও কাইনমাস্টার প্রো ডাউনলোড করার জন্য নিচে লিংক দেওয়া থাকবে সেখানে ক্লিক করে নামিয়ে নিতে পারবেন।

প্লে-স্টোর থেকে kinemaster pro app download করতে ডলারের প্রয়োজন হবে। তাই এখান থেকে সম্পূর্ণ ফ্রিতে প্রো ভার্শনটি নামিয়ে নিন।

অন্যদিকে আইওএস ইউজাররা অ্যাপল স্টোর থেকে কাইন মাস্টার অ্যাপস ডাউনলোড করে নিতে পারবেন। অ্যাপল ইউজারদের জন্য Pro ভার্শন ডাউনলোড করতে হলে নিচে থাকা আইওএস ডাউনলোডে ক্লিক করুন।

কাইনমাস্টার প্রো ডাউনলোড করার সুবিধা হলো আপনি নতুন কিছু ফিচার পাবেন যেটা ফ্রি ভার্সনে নেই এবং ওয়াটারমার্ক রিমুভ করা থাকবে।

যারা কাইন মাস্টার এপস ফ্রী ভার্শন ব্যবহার করে তাদের ভিডিও এডিটিং এর মধ্যে অটোমেটিক Watermark চলে আসবে। ফলে ভিডিওটি দেখতে অনেকতা অসুন্দর লাগতে পারে।

কাইনমাস্টার সফটওয়্যার হলো একটি প্রিমিয়াম সফটওয়ার। ফলে ফ্রি ইউজাররা ট্রায়াল হিসেবে ব্যবহার করতে পারে এবং যারা অ্যাপটি ক্রয় করে ইউজ করে তারা নির্দিষ্ট সময়ের জন্য সাবস্ক্রিপশন করে নেয়। আর এর থেকে অ্যাপস ডেভেলপার আয় করে থাকে।

আপনি যদি অ্যাপটি ক্রয় করে ব্যবহার করেন তাহলে আপনার জন্য সবচেয়ে ভালো হবে। কারণ প্রিমিয়াম অ্যাপস ফ্রিতে পাওয়া যায় তবে সেটার মধ্যে বিভিন্ন ভাইরাস থাকে ও তথ্য লিক হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তাই প্রিমিয়াম অ্যাপস সব সময় ক্রয় করে ব্যবহার করার চেষ্টা করুন।

Kinemaster Download For Android

KineMaster Pro Download For Android

KineMaster Download For Ios

উপসংহার

বর্তমানে মোবাইল দিয়ে ভিডিও এডিটিং করার সবচেয়ে জনপ্রিয় অ্যাপস হলো কাইনমাস্টার সফটওয়্যার। এই সফটওয়্যারের মাধ্যমে আকর্ষনীয় ভিডিও এডিট করা যায় ও মেমোরিতে সেভ করা যায়। আপনি যদি ভিডিও এডিট করার কোনো অ্যাপস ডাউনলোড করতে চান তাহলে কাইন মাস্টার অ্যাপস এখনই ডাউনলোড করে নিন। ধন্যবাদ!

Leave a Comment

error: Content is protected !!